শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০২:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
কাজিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য পরীক্ষার বিলের টাকার সিংহভাগ নয়ছয় হওয়ার অভিযোগ ফ্রান্সে মহানবীর ব্যাঙ্গ চিত্র প্রদর্শন প্রতিবাদে ফুলবাড়ীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ নাগরপুরে গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টা:গ্রাম্য সালিশে বিচার না পেয়ে থানায় মামলা মধুপুরে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ)মাহফিল অনুষ্ঠিত আসছে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী লুপর্ণা মূৎসূর্দ্দী লোপার নতুন মিউজিক ভিডিও চৌহালীতে জেলেদের মাঝে চাল বিতরণ বাবার অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে ভোট চাইলেন নাসিমপুত্র জয় কারা হচ্ছেন কালিগঞ্জ বিএনপির কান্ডারী বেলকুচিতে যমুনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরার অপরাধে ১৫ জেলের কারাদন্ড সিংড়া মডেল প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপ নির্ণয়
সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক কমায় মাস্ক: গবেষণা

সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক কমায় মাস্ক: গবেষণা

করোনাভাইরাস মহামারির প্রাণকেন্দ্রগুলোতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করায় হাজার হাজার সংক্রমণ রোধ করা গেছে বলে এক নতুন গবেষণায় উঠে এসেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের দ্য প্রসিডিং অব দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস’এ (পিএনএএস) প্রকাশিত এক গবেষণায় গবেষকরা জানান, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব ও বাসায় থাকার চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ মাস্ক পরা।

সমীক্ষায় জানা গেছে, ৬ এপ্রিল উত্তর ইতালি ও ১৭ এপ্রিল নিউইয়র্ক সিটিতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়। তারপর থেকেই মহামারির কেন্দ্রস্থল হয়ে ওঠা অঞ্চল দুটিতে সংক্রমণের প্রবণতা নাটকীয়ভাবে কমতে থাকে। গবেষকরা বলেছেন, ‘শুধু এই সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা উল্লেখযোগ্যভাবে সংক্রমণ কমিয়েছিল- ৬ এপ্রিল থেকে ৯ মে পর্যন্ত ইতালিতে ৭৮ হাজার এবং ১৭ এপ্রিল থেকে ৯ মে পর্যন্ত নিউইয়র্ক সিটিতে ৬৬ হাজার।

নিউইয়র্কে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক হওয়ার পর থেকে দৈনিক সংক্রমণের হার ৩ শতাংশ নেমেছিল বলে জানান গবেষকরা। দেশের অন্য অংশে বাড়ছিল সংক্রমণ।

মাস্ক পরার নিয়ম কার্যকর হওয়ার আগে থেকে ইতালি ও নিউইয়র্ক সিটিতে সামাজিক দূরত্ব, কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশন এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজিংয়ের মতো স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছিল। কিন্তু এগুলো কেবল সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রমণ হ্রাস করতে সহায়তা করে। অন্যদিকে মুখ ঢেকে রাখা বায়ুবাহিত সংক্রমণ রোধে সহায়তা করে বলে জানান গবেষকরা।

জনসমাগমপূর্ণ এলাকা যেখানে কোলাহল অনেক বেশি সেখানে অন্তত কাপড়ের মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
Design & Developed BY RSK HOST