শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০২:০০ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
রাত পোহালেই সিরাজগঞ্জের ৫টি পৌরসভার নির্বাচন রাত পোহালেই উল্লাপাড়ায় পৌরসভায় ১৭ টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ দেশের প্রথম নারী কাজী হওয়ার স্বপ্ন আয়শা’র খনি শ্রমিক সন্তানদের মাঝে শিক্ষা উপবৃত্তি প্রদান ফুলবাড়ী থানা ব্যবসায়ী সমিতির আহ্বায়ক নওশাদ আলম মুন্না’র মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক নাগরপুরে সড়ক উন্নয়ন কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন নাগরপুরে রোটারী ক্লাবের উদ্যোগে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ ফ্রি-মিক্সিং নারী পুরুষের অবাধ মিশ্রণ ইসলামী শরীয়াহ কি বলে? কালিগঞ্জে এমদাদিয়া কল্যাণ সংস্থার পক্ষে দ্বিতীয় ধাপে শতাধিক কম্বল বিতরণ নাগরপুরে দলিল লেখক সমিতির নিজস্ব ভবন উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

দক্ষিন এশিয়ায় সেরা নির্বাচিত হয়েছে “একজন মহান পিতা

বিশেষ প্রতিনিধি:

 

গত ১৮ ডিসেম্বর মুক্তি পাওয়া বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোট নিবেদিত ছবি“একজন মহান পিতা” চলচ্চিত্রটি দক্ষিন এশিয়ার সেরা নির্বাচিত হয়েছে। সিনেমেকিং ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০২০ এর জুরিবোর্ড এই ঘোষণা প্রদান করেন। এতে সেরা চলচ্চিত্র – একজন মহান পিতা(পূর্ণদৈর্ঘ্য) সেরা চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে মনোনীত হয়েছেন বিশিষ্ট লেখক কলামিস্ট ও কথাসাহিত্যিক নির্মাতা – মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন। বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এই ছবির প্রযোজক শেখ শাহ আলমের এটি প্রথম প্রযোজনা।
চলচ্চিত্রের এওয়ার্ড অনুষ্ঠানটি 25 ডিসেম্বর সন্ধ্যায় রাজধানী ঢাকার দনিয়ায় সহজপাঠ স্কুলে অনুষ্ঠিত হয়। দেশী বিদেশি চলচ্চিত্রের মধ্যে ১১টি ক্যটাগরিতে এক অনাড়ম্বর আয়োজনের মাধ্যমে পুরস্কার প্রদান করা হয়।
এ সময় বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের নেতাকর্মী ও “একজন মহান পিতা” চলচ্চিত্রের কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন।
উপস্থিত ছিলেন জোটের সভাপতি গীতিকার, সুরকার ও চলচ্চিত্র প্রযোজক শেখ শাহ আলম, চলচ্চিত্র পরিচালক মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন, সহকারী পরিচালক রাশেদুল ইসলাম রাজিব, কন্ঠশিল্পী ও অভিনেত্রী আলভী সরকার, অভিনেত্রী শেখ রজনী, অভিনেত্রী সিফাত বন্যা।
পুরস্কার প্রদান করেন ফেস্টিভ্যাল চেয়ারম্যান অভিনেতা টুটুল চৌধুরী, ফেস্টিভ্যাল ডিরেক্টর মেঘসহ অন্যরা।পুরস্কার বিষয়ে কথা বলেন ছবির পরিচালক মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন। তিনি এই প্রতিবেদককে জানান, ‘ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালির একটি ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে তারই অনুপ্রেরণায় বাস্তবাতাকে ফুটিয়ে তুলেছিলাম কাহিনীতে। আর প্রযোজন শাহ আলম সাহেব এগিয়ে এলেন ছবিটি নির্মাণে।ব্যস! কয়েকগণ্ডা নতুন মুখের মাধ্যমে ছবিটিকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে নির্মাণ করেছি। পুরস্কার পেয়ে ভালো লাগছে।
ছবির প্রযোজক শেখ শাহ আলম জানান, ‘ মির্জা সাহেবের বাস্তবধর্মী গবেষণালব্ধ কাহিনী আমার ভালো লেগেছিলো। মুজিববর্ষে তাই বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোট দেশবাসীকে এই বাস্তব ও সুস্থ্যধারার ছবি উপহার দিলো। আশা করি সৃজনশীল কাজে ইনশা আল্লাহ এমনি করেই কাজ করে যাবো।” উল্লেখ্য এই ছবিতে জুটি বেঁধে কাজ করছেন মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেনের কন্যা নবাগত মির্জা আফরিন ও হিমেল রাজ। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেন ছবির প্রযোজক শেখ শাহ আলম, আলভি সরকার, সৃষ্টি মির্জা, সাগরিকা মন্ডল, রাশেদুল ইসলাম রাজিব, রাশেদ রেহমান, শ্যামল কান্তি নাগ, রেজাউল রাজু, চান মিয়া সিকদার প্রমূখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
error: Alert: Content is protected by Frilix Group