রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
সলঙ্গার বনবাড়িয়া গ্রামে  কষ্টে জীবন যাপন করছে রুমা খাতুন কালিগঞ্জে খ্যাতনামা লেখকদের অংশগ্রহণে সাহিত্য আড্ডা অক্লান্ত পরিশ্রম সফলতা এনে দিয়েছে জাহাঙ্গীরের সলঙ্গায় সাখাওয়াত এইস মেমোরিয়াল হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত। রুমী সভাপতি ও গোলাম মোস্তফা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত শাহজাদপুর চরনবীপুরে ভলিবল খেলা অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে ১০ শ্রেনীর ছাএীকে বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা করলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সলঙ্গায় ৫ দিন যাবৎ প্রেমিকের বাড়ীতে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকার অনশন ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি পদে মনোনয়ন ফরম কিনলেন আবু সাইদ বিদ্যুৎ চৌহালীতে স্কুল শিক্ষককে হেয়  করার প্রতিবাদে মানববন্ধন

কালিগঞ্জে জাহানারা খাতুন নামে এক গৃহবধূর আত্মহত্যা

আর. ফেরদৌস রনি, কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে এক গৃহবধূর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা নিয়ে গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে। আত্নহত্যাকারী গৃহবধূর নাম জাহানার খাতুন (২১)। তিনি উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী। তবে এই আত্মহত্যার প্রকৃত রহস্য এখনো উদঘাটন হয়নি।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) বেলা ১১ টার দিকে পরিবারের সকলের অগোচরে জাহানারা খাতুন নিজ ঘরের আড়ায় রশির সাহায্যে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরবর্তীতে পরিবারের সদস্যরা মৃতদেহ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দিলে উপ-পরিদর্শক অর্পণা রানী বিশ্বাস ঘটনাস্থলে যেয়ে মরদেহ থানায় আনেন। শুক্রবার সকালে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে। তবে কী কারণে জাহানারা খাতুন আত্মহত্যা করেছেন সে ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নিহতের স্বামী ও শশুর জীবিকার তাগিদে কুমিল্লায় ইটের ভাটায় কাজ করেন।
বাড়িতে থাকেন বউ, শাশুড়ি ও সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া ননদ ।

সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া ননদ নাছরিন (১৩) জানান, তার ভাবি সকালে রান্না করে এক সাথে খাওয়া দাওয়া শেষে তার মা (নিহতের শাশুড়ী) শিরিনা (৩৮) কাজের উদ্দেশ্য বাড়ি থেকে চলে যান এবং সে প্রাইভেট পড়তে যায়। প্রাইভেট শেষে বাড়িতে এসে দেখতে পান যে ঘরে গলায় রশি দিয়ে ঝুলে আছে তার ভাবি।

এ ব্যাপারে নিহত জাহানারা খাতুনের মা প্রতিবেদককে জানান, এটা আত্মহত্যা নয় পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড । প্রায় সময় আমার মেয়েকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন চালাতো।

বউ ও শাশুড়ির মধ্যে প্রায় ঝগড়া বিবাদ হত বলে প্রতিবেশীরা নিশ্চিত করেছেন। প্রশাসনের নিকট তদন্তপূর্বক প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের জন্য দাবি জানিয়েছেন অনেকেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
error: Alert: Content is protected by Frilix Group