শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ১০:৫৮ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
কালিগঞ্জ সীমান্তে অবৈধ ভারতীয় গলদা রেনু সহ ৩ চোরাকারবারি আটক সিরাজগঞ্জে মুজিব ফোর্সের কমিটি গঠন মধুপুরে ধান কর্তন উৎসব এর শুভ উদ্ভোধন করলেন কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক এমপি ফেনীতে ১১ বছরের শিশুকে গলাকেটে হত্যা: ১৭ বছরের বালক আটক কালিগঞ্জের কৃতি সন্তান আবুল কালাম আজাদ পুলিশ সুপার হলেন ফেনীতে ছেলে করোনা আক্রান্ত শুনে মায়ের মৃত্যু, ১০ দিন পর ছেলেরও মৃত্যু নাগরপুরে দপ্তিয়ার ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ টাঙ্গাইলের মধুপুরে হিজড়াদের মধ্যে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ চৌহালীতে বাংলাদেশ এ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ফেনীতে সানরাইজ ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া

অশ্রুসিক্ত নয়নে বিদায় নিলেন কালিগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হুসেন

আর. ফেরদৌস রনি, কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ

সংক্ষিপ্ত মানবজীবনকে অনন্তকাল বাঁচিয়ে রাখতে হলে তথা স্মরণীয়-বরণীয় করে রাখতে হলে কল্যাণকর কর্মের কোনো বিকল্প নেই। এমনি অসংখ্য কল্যাণকর কর্ম সম্পাদন করে মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতিক হয়ে উঠেছিলেন সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মো. দেলোয়ার হুসেন।
মানুষ এই মানবিক পুলিশ কর্মকর্তাকে একদিন নিয়মতান্ত্রিক বদলী হতে হবে একথা একরকম ভুলেই গিয়েছিলেন। হঠাৎ এমনই একটি ক্ষণ তৈরি হল। কালিগঞ্অফিসার ইনচার্জ কে সাতক্ষীরা সদর থানায় বদলী করা হয়েছে। খবরটি প্রকাশের পর কালিগঞ্জবাসীর চোঁখে যেন হতাশার স্পষ্ট ছাপ। তারা যেন তাদের একটা স্বপ্ন ও প্রত্যাশার জায়গা হারিয়ে ফেললো।

সরকারি চাকুরীর নিয়মই হচ্ছে এক জায়গায় বেশি দিন দায়িত্ব পালন করা যাবে না। চলে যেতে হবে অন্য কোন কর্মস্থলে, সেবা দিতে হবে সেই অঞ্চলের জনসাধারনের। এই নিয়মের বাইরে নন বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। চাকুৃরী জীবনে তাদেরকে বিভিন্ন জেলা ও থানায় দায়িত্ব পালন করতে হয়, কিন্তু যার মধ্যে সততা থাকে তাকে সারা জীবন মানুষ মনে রাখে। সৎ ও কর্মঠ অফিসারের গুনকীর্তন করতে কালিগঞ্জবাসী কখনো ভুল করে না। এমনই একজন সৎ, নির্ভীক, কর্মঠ ও নিরহংকারী মনের অধিকারী মানুষ হচ্ছেন কালিগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মো. দেলোয়ার হুসেন।
তিনি গত ২০১৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর কালিগঞ্জ থানায় অফিসার ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করার পর থেকে জেলার পুলিশ সুপারের সার্বিক দিক নির্দেশনায় থানার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, মাদক নির্মূল, সামাজিক ও মানবিক কাজে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অংশগ্রহণের জন্য উপজেলাবাসীর কাছে ইতোমধ্যে মানবিক পুলিশ অফিসার হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। করোনাকালে তিনি খাদ্য সামগ্রী ও মাস্ক বিতরণ, সচেতনতা সহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে ব্যপক দৃষ্ঠান্ত স্থাপন করেন। থানা মসজিদের আয়োজনে বিদায় অনুষ্ঠানে বক্তব্যে তিনি বলেন, মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পেরে খুবই গর্ববোধ করছি এবং গর্ববোধ করি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর একজন সদস্য হয়ে যারা
এই করোনা মহামারীর দুঃসময় ও মানুষের পাশে থেকে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ পুলিশ সদস্য। জনগনের জন্য বাংলাদেশ পুলিশের ভূমিকা অপরিসীম। পুলিশ মানে জনগনের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করা, আর পুলিশ মানে শত ভয়কে জয় করে মানুষের সেবা করা। পুলিশ মানে নিজে রাত জেগে ঘুমকে বিসর্জন দিয়ে অন্যকে ঘুমের স্বাদ দেওয়া।
পুলিশ মানে একাত্তরের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে জীবনদাতা। পুলিশ মানে ব্যথিত হৃদয়ে মানুষের মাঝে মিশে যাওয়া অংশীদার, পুলিশ মানে জনগনের যান মালের নিরাপত্তার দাবিদার। পুলিশ মানে করোনাকালে ভয়ে রাস্তায় ফেলে যাওয়া মানুষের পাশের দাফন দাতা, পুলিশ মানে নিজে ঈদে বাড়ি না গিয়ে অন্যকে ঈদের আনন্দ দেওয়া, পুলিশ মানে এই করোনাকালে বাড়ি বাড়ি খাবার পৌছে দেওয়া, তার পরেও আমরা অনেক খুশি, আমরা দেশ ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করতে পেরে। এসময় অন্যান্য বক্তারা বিদায়ী ওসির স্মৃতিচারণকালে বলেন- মানবিক পুলিশ অফিসার, সুযোগ্য উদ্যামী, ন্যায়পরায়ন, মেধাবী, সৎ, সাহসী, কর্মঠ, দক্ষ নিরহংকারী কর্তব্য পরায়ন ও আন্তরিক ব্যক্তিত্ব মোঃ দেলোয়ার হুসেন। তিনি সব শ্রেণির মানুষের মধ্যে পরস্পারিক সৌহার্দ ও সুসম্পর্ক বজায় রেখে যে বিরল দৃষ্ঠান্ত স্থাপন হয়েছে তার জন্য বড় ও উদার মনের এই পুলিশ কর্মকর্তার অবদান অনস্বীকার্য। পুলিশ বাহিনীতে তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে সামাজিক অপরাধমূলক কর্মকান্ড অনেক কমে আসবে। তিনি কালিগঞ্জ থানার সার্বিক অবকাঠামো উন্নয়ন, আসবাবপত্র তৈরী, থানা ক্যাম্পাসকে নিজের মত করে ফুলে ফলে সাজানো, জরাজীর্ণ থানার প্রাচীর আধুনিকায়ন করা, গাড়ীর গ্যারেজ, গোলঘর, ভিআইপি গেষ্টরুম, বাবুর্চিখানা, গোছলখানাসহ সকল দিক দিয়ে আধুনিকায়ন করেছেন। শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) জুম্মার নামাজবাদে মসজিদের সহ সভাপতি ও থানার ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং মসজিদ কমিটির যুগ্ম সম্পাদক ও কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি শেখ হুসাইন আহম্মেদ গোলাম, শেখ মোস্তফা মোহাম্মাদ আলী, শেখ আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। বিদায়কালে মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকে অফিসার ইনচার্জকে উপহার সামগ্রী দিয়ে ভূষিত করা হয়। মানবিক ওসির জন্য কান্না জড়িত কন্ঠে সকলেই দোয়া করে দেন। তিনি আগামী রবিবার সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ হিসাবে যোগদান করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
error: Alert: Content is protected by Frilix Group