শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
চলতি মাসেই চালু হবে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেন-রেলমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ের সেমিনার অনুষ্ঠিত বিশ্বনাথে ‘স্বপ্ন’র যাত্রা শুরু সলঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক পথচারীর মৃত্যু আওয়ামীলীগ বাংলাদেশের রাজনীতিতে সবসময়ই অত্যন্ত শক্তিশালী ও গুরুত্বপূর্ণ দল -কৃষিমন্ত্রী বিশ্বনাথে সাজাপ্রাপ্ত আসামি সুহেল গ্রেফতার বেলকুচিতে সরকারি জমি দখল করে অবৈধভাবে দোকান নির্মাণ কাজিপুরে বন্যায় রোপা আমন ধান তলিয়ে জাওয়ায় ১৩ হাজার ৩৭১ কৃষের কপালে ভাজ বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত – ১ উল্লাপাড়ায় ট্রাকচাপায় কলেজ ছাত্রসহ নিহত ২

বিশ্বনাথে বেখারগাও গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলা আহত ২

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :

সিলেটের বিশ্বনাথে জুম্মার নামাজ পড়তে মসজিদে যাওয়ার পথে জায়গা সক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় দুই জন আহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার সরুয়ালা বেখারগাঁও গ্রামে এঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার কারণে গ্রামের জামে মসজিদে মুসল্লীগণ জুম্মার নামাজ পড়তে পারেননি। আহতরা হলেন- সরুয়ালা গ্রামের মৃত সমছু মিয়ার পুত্র জুয়েল আহমদ (৪০), ও তার বাড়ির কাজের লোক সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের মৃত জাহির আলীর পুত্র আফিজ আলী (৫০)। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মনির হোসেন নামের এক অভিযুক্তকে আটক করে থানা পুলিশ। তিনি সরুয়ালা গ্রামের মৃত ওয়াজিদ আলীর পুত্র।

এ ঘটনায় আহত জুয়েল আহমদের ভাতিজা কমরু মিয়া বাদী হয়ে মনির হোসেনসহ ৭ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ৫, তাং- ১০.০৯.২০২১ইং। অন্যান্য অভিযুক্তরা হলেন, সরুয়ালা গ্রামের মৃত ওয়াজিদ আলীর পুত্র আনহার আলী, আব্দুল মালিক উরফে হুশিয়ার আলী, তার পুত্র রাজা মিয়া, মৃত বশির মিয়ার পুত্র আতিক মিয়া, তার পুত্র কামরান আহমদ ও মৃত আনছার আলীর স্ত্রী জরিনা বেগম। এছাড়া আরও ৩জন অজ্ঞাতনামা অভিযুক্ত করা হয়েছে।

অভিযোগে কমরু মিয়া উল্লেখ করেন, অভিযুক্ত মনির হোসেন গংদের সাথে জায়াগা জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ও মামলা মোকদ্দমা চলে আসছে। কমরু মিয়া ও তার চাচা জুয়েল আহমদ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জুম্মার নামাজ আদায় করতে গ্রামের মসজিদে যাওয়ার পথে মসজিদের গেইটের সমানে তাদের উপর অভিযুক্তরা পূর্ব বিরোধের জের ধরে আক্রমণ করেন।

এ সময় কমরু মিয়া আত্মরক্ষার্থে দৌড় দিয়ে মসজিদের ভিতরে প্রবেশ করে ভিতর থেকে দরজা বন্ধ করে রাখেন। তখন অভিযুক্তরা জুয়েল আহমদ ও তার সঙ্গে থাকা বাড়ির কাজের লোক আফিজ আলীর উপর হামলা করে তাদেরকে গুরুত্বর আহত করে। খবর পেয়ে বিশ্বনাথ থানার এসএই আফতাবউজ্জামান রিগ্যানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মসজিদের ভিতরে আটকে থাকা কমরু মিয়াকে উদ্ধার করে এবং আহতরদেরকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এ ঘটনার কারণে গ্রামের মসজিদে জুম্মার নামাজের জামাত পড়া সম্ভব হয়নি বলে জানান কমরু মিয়া। মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, অভিযুক্ত মনির হোসেন নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
error: Alert: Content is protected by Frilix Group