শনিবার, ১২ Jun ২০২১, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
কালিগঞ্জে হারুন এগ্রিকালচার ফার্ম পুকুরে বিষ প্রয়োগ, ৩ লক্ষ টাকার ক্ষতি সলঙ্গার রামকৃষ্ণপুরে ডিজিটাল কায়দায় বয়স্ক ভাতার টাকা চুরি কাজিপুরে মৎস্য কর্মকর্তার অভিযানে ২৫ টি চায়না জাল জব্দ আওয়ামী লীগ নেতাকে মারপিট,মনিগ্রাম বাজারে আতংক এখন আফাজ কামারখন্দে কৃষিজমিতে নদীখননের বালি রাখার প্রক্রিয়ার প্রতিবাদে কৃষকদের বিক্ষোভ সিরাজগঞ্জে বিদ্যুৎ গ্রাহকদের নানা অভিযোগের প্রেক্ষিতে গণশুনানী কালিগঞ্জ থানায় কুখ্যাত চোর জালালসহ ওয়ারেন্টভুক্ত ০৪ আসামী গ্রেফতার সিরাজগঞ্জে জেলা পর্যায়ে করোনা প্রতিরোধ বিষয়ক কার্যক্রম সুসমন্বয়ের লক্ষ্যে-মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নাগরপুরে দূর্যোগ বিষয়ক স্থায়ী আদেশাবলী অবহিতকরণ কর্মশালা কালিগঞ্জের হাড়দ্দহা গ্রামে জনকল্যাণার্থে নলকূপ স্থাপন করলেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী শেখ নাসিরউদ্দীন

চৌহালীর চরাঞ্চলের ৩শ’ ঘরবাড়ি যমুনায় বিলীন

চৌহালী(সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

 

 

সিরাজগঞ্জে র চৌহালী উপজেলায় বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।এতে খাষপুকুরিয়া,বাঘুটিয়া,উমারপুর ইউনিয়নে নদী তীরে ভাঙন দেখা দিয়েছে।
১০ টি চরের ৩০০ বাড়িঘর নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। হুমকির মুখে পড়েছে হিজুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,ঘুশুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। যে কোনো সময় বিদ্যালয়টি নদীতে ধসে যাওয়ার আশংকা দেখা দেয়ায় স্থানীয়রা দ্রুত স্থানান্তরের দাবি জানিয়েছেন। শনিবার বিকালে যমুনা নদীতে পানি বিপৎসীমার ১০৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উপজেলার চরাঞ্চল ঘুড়ে দেখা গেছে, পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় যমুনা নদী তীরে ভাঙন তীব্র হয়েছে। গত কয়েকদিনে উপজেলার বাঘুটিয়া ইউনিয়নের ঘুশুরিয়া,হিজুলিয়া, হাটাইল, উমারপুর ইউনিয়নের আরকান্দি,ধূবুলিয়া ও খাষপুকুরিয়া ইউনিয়নের খাষদেলদারপুর সহ ১০ চরের প্রায় ৩০০ ঘরবাড়ি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে।এসব চরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় দুঃখের শেষ নাই। উপজেলার ২৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। গবাদিপশু নিয়ে বন্যাদুর্গতদের খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট দেখা দিয়েছে। মাঠে পানি থাকায় গবাদি পশুর খাদ্যঅভাব দেখা গেছে। বন্যার্তরা দুর্বিষহ জীবনযাপন করছেন।
ঘুশুরিয়া চরের বাসিন্দা আনিছুর রহমান (৪০), হজরত (৪৪), হিজুলিয়া গ্রামের বাশি আলী(৫৫), রমজান আলী (২৮),খাষদেলদারপুর চরের আলীম মোল্লা প্রমুখ জানান, ঘড়ের ভিরত পানি ঢুকে পড়েছে রাতে ভ্যাপসা গরম, সাপ পোকা ও মশার অত্যাচারে দু’চোখে ঘুম আসে না। অপরদিকে গোখাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মজনু মিয়া জানান, দুই এক দিনের মধ্যে বন্যার্তেদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হবে ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
error: Alert: Content is protected by Frilix Group