মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার জন্মদিন উপলক্ষে নাগরপুরে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে গ্রাম আদালতের মাধ্যমে ১৫ টি ইউনিয়নে পুরাতন মোটরসাইকেল হস্তান্তর যাত্রী বাহী বাসে অজ্ঞান এক মহিলার পাশে দাড়ায় প্রত্যয় ব্লাড ডোনেশন চুরির আপবাদে মাদ্রাসা ছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগে কওমি শিক্ষক আটক মধুপুরে বীজ ধানের মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে মানববন্ধন কালিগঞ্জে মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মৎস্য চাষীদের প্রণোদনা প্রদাণে স্বেচ্ছাচারিতা ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগে মানববন্ধন সলঙ্গায়  বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৩ শাহজাদপুরে ভাতিজার ফালার আঘাতে চাচার মৃত্যু সলঙ্গার বনবাড়িয়া গ্রামে  কষ্টে জীবন যাপন করছে রুমা খাতুন কালিগঞ্জে খ্যাতনামা লেখকদের অংশগ্রহণে সাহিত্য আড্ডা

নৌকা ও স্পিডবোট এর ব্যবসায় নামলো আরএফএল

অন্য অনেক পণ্যের পাশাপাশি এবার নৌকা ও স্পিডবোটের ব্যবসায় নেমেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী আরএফএল। বর্তমানে সাপোর্ট ব্র্যান্ডের পাঁচটি মডেলের নৌকা এবং একটি মডেলের স্পিডবোট বাজারে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। একেকটি নৌকার দাম ১১ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ৭ লাখ ৪০ হাজার টাকার মধ্যে। নৌকার ধারণক্ষমতা ৪ থেকে ৩০ জন। আর ১০ জন যাত্রী ধারণক্ষমতার স্পিডবোটের দাম ৮ লাখ ১৮ হাজার টাকা।

নরসিংদীর ডাঙ্গা ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে গতকাল রোববার ফাইবার গ্লাসের (ফাইবার রিইনফোর্সড প্লাস্টিক বা এফআরপি) তৈরি ‘সাপোর্ট’ ব্রান্ডের নৌকা ও স্পিডবোটের আনুষ্ঠানিক বাজারজাত কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন আরএফএল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আর এন পাল। প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ সোমবার এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

সাপোর্ট ব্র্যান্ডের পাঁচটি মডেলের নৌকা এবং একটি মডেলের স্পিডবোট বাজারে এনেছে আরএফএল। একেকটি নৌকার দাম ১১ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ৭ লাখ ৪০ হাজার টাকার মধ্যে। নৌকার ধারণক্ষমতা ৪ থেকে ৩০ জন। আর ১০ জন যাত্রী ধারণক্ষমতার স্পিডবোটের দাম ৮ লাখ ১৮ হাজার টাকা।

অনুষ্ঠানে আর এন পাল বলেন, ‘নদীমাতৃক বাংলাদেশে নৌকার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। বর্তমানে কাঠের নৌকা বেশি প্রচলিত হলেও এটি বেশি দিন টেকে না। পানিতে বেশি সময় থাকলে কাঠের গুণগত মানও নষ্ট হয়। ঘন ঘন সংস্কারের কারণে ব্যবহারকারীর অতিরিক্ত খরচ হয়। এ কারণে আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মেলাতে আমরা ফাইবার গ্লাসের নৌকা বাজারে এনেছি।’

আরএফএল গ্রুপ দাবি করেছে, সাপোর্ট ব্রান্ডের নৌকা মজবুত ও দীর্ঘস্থায়ী। সহজে মেরামতযোগ্য। এটি কাঠের নৌকার তুলনায় দ্রুত চলে। বারবার রং করার প্রয়োজন নেই। মরিচাপ্রতিরোধী ও সহজে ডোবে না। ফাইবার গ্লাস দিয়ে তৈরি এই নৌকা ওজনে হালকা হওয়ায় সহজে পরিবহন করা যায়।

সাপোর্ট ব্র্যান্ডের নৌকার ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (অপারেশন) এ আর শামসুর রহমান জানান, নরসিংদীর ডাঙ্গা ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের নিজস্ব কারখানায় আরএফএলের নৌকা ও স্পিডবোট তৈরি করা হয়। তিনি বলেন, যাত্রী পারাপার, মালামাল পরিবহন, পার্কে ব্যবহার, মাছের খাবার দিতে ও মাছ ধরতে সাপোর্ট ব্র্যান্ডের নৌকা ও স্পিডবোট ব্যবহার করা যাবে। ভবিষ্যতে আরএফএলের ইয়ট (প্রমোদতরি) ও ইঞ্জিনের বড় নৌকা তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে।

আরএফএল গ্রুপ জানায়, অনুমোদিত ডিলার, বেস্ট বাই ও ইজিবিল্ডের বিক্রয়কেন্দ্রের মাধ্যমে সাপোর্ট ব্র্যান্ডের নৌকা ও স্পিডবোট বিক্রি হবে। ক্রেতারা নৌকা ও স্পিডবোটে এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved
error: Alert: Content is protected by Frilix Group